মেনু নির্বাচন করুন
Text size A A A
Color C C C C
কক্সবাজার পল্লীবিদ্যুৎ সমিতি, উখিয়া জোনাল অফিস ।

কক্সবাজার পল্লী বিদ্যুৎসমিতি ১৯৯১ ইং সালে কার্যক্রম শুরুর প্রারম্ভিকসময় হতে কক্সবাজার জেলার কৃষি, শিল্প ও আর্থ-সামাজিক অবস্থার উন্নয়নেব্যাপক ভূমিকা রেখে চলেছে। আধুনিক সেচ ব্যবস্থার মাধ্যমে খাদ্যেস্বয়ংসম্পূর্ণতা অর্জন, বৃহৎ-সহ মাঝারি ও ক্ষুদ্র শিল্পের ব্যাপক প্রসারএবং শিক্ষা-স্বাস্থ্য ও তথ্য প্রযুক্তি বিকাশের ক্ষেত্রে অগ্রণী ভূমিকাপালন করে কক্সবাজার জেলা তথা সারা বাংলাদেশের মানুষের জীবনযাত্রার মানউন্নয়নে দেশব্যাপী পরিচালিত পল্লী বিদ্যুতায়ন কার্যক্রমের একটি অংশরূপেকার্যকর ভূমিকা পালন করছে। লাভ নয়, লোকসান নয় - গ্রাহকগণই প্রকৃত মালিক ওসেবক মূলনীতিতে এবং সমবায় ভিত্তিতে কক্সবাজার পল্লী বিদ্যুৎসমিতি এরকার্যক্রম পরিচালিত হয়।

  • কী সেবা কীভাবে পাবেন
  • প্রদেয় সেবাসমুহের তালিকা
  • সিটিজেন চার্টার
  • সাধারণ তথ্য
  • সাংগঠনিক কাঠামো
  • কর্মকর্তাবৃন্দ
  • তথ্য প্রদানকারী কর্মকর্তা
  • কর্মচারীবৃন্দ
  • বিজ্ঞপ্তি
  • ডাউনলোড
  • আইন ও সার্কুলার
  • ফটোগ্যালারি
  • প্রকল্পসমূহ
  • যোগাযোগ

গ্রাহক সেবা কেন্দ্র

বিদ্যুৎসরবরাহ দপ্তরের ‘‘এক অবস্থান সেবা কেন্দ্র’’-এ নতুন বিদ্যুৎসংযোগ, বিল ওমিটার সংক্রান্ত অভিযোগ, বিল পরিশোধের ব্যবস্থাসহ সকল ধরনের অভিযোগ জানানোযাবে এবং এতদসংক্রান্ত বিষয়ে তথ্য পাওয়া যাবে।

নতুন সংযোগ গ্রহণ

‘‘একঅবস্থান সেবা কেন্দ্র’’ থেকে নতুন সংযোগের আবেদনপত্র পাওয়া যাবে। আবেদনপত্রটি যথাযথ ভাবে পুরণ করে আবেদন পত্রের সাথে প্রয়োজনীয় সংযোগ স্থলেরমালিকানা সংক্রান্ত জমির কাগজাদি, নাগরিক সনদ, জম্ম নিবন্ধন সনদ, ২ (দুই)কপি পাসপোর্ট সাইজ ছবি সহ নির্ধারিত আবেদন ফি জমা প্রদান করলে জমা রশিদপ্রদান করা হয়। পরবর্তী প্রয়োজনীয় সমীক্ষা এবং ষ্টেকিং কার্য সম্পন্নশেষে কর্তৃপ কর্তৃক সংযোগ অনুমোদনের পর প্রয়োজনীয় লাইন নির্মান মালামালপ্রাপ্তি স্বাপেক্ষে সংযোগ ছাড়পত্র, ডিমান্ড নোট ও প্রাক্কলন ইস্যু করাহয়। প্রস্তাবিত সংযোগ স্থলে সমিতির প্রশিন প্রাপ্ত ইলেকট্রিশিয়ান দ্বারাপ্রয়োজনীয় ওয়্যারিং কার্যাদি সম্পন্নের পর সমিতির সদর দপ্তর /জোনালঅফিস/বিলিং এরিয়া অফিস সমূহে ডিমান্ড নোটের উল্লিখিত অর্থ জমা গ্রহনপূর্বক সংযোগ প্রদানের ব্যবস্থা গ্রহন করা হয়ে থাকে। যদি সংযোগ প্রদানসম্ভবপর না হয় তবে তা’র কারণ জানিয়ে আবেদনকারীকে পত্র দেয়া হয়।

 

বিল সংক্রান্ত অভিযোগ

বিলসংক্রান্ত যে কোন অভিযোগ; যেমন, চলতি মাসের বিল পাওয়া যায়নি, বকেয়াবিল, অতিরিক্ত বিল, ইত্যাদির জন্য ‘‘এক অবস্থান সেবা কেন্দ্র’’ -এ যোগাযোগকরলে সমাধান সম্ভব হলে তা’ তাৎনিক নিষ্পত্তি করা হবে। অন্যথায় জানিয়েদেয়া হবে।

 

বিল পরিশোধ

নির্ধারিতব্যাংক / সমিতির সদর দপ্তর/ জোনাল অফিস/বিলিং এরিয়া অফিসে গ্রাহক বিলপরিশোধ করতে পারবেন। ইলেকট্রনিক বিল পে -এর আওতাভুক্ত এলাকায়মোবাইলেএস এম এস এর মাধ্যমে বিল পরিশোধ করা যাবে।

 

বিদ্যুৎবিভ্রাটের অভিযোগ

বিদ্যুৎসরবরাহ ইউনিটের নির্দিষ্ট ‘‘অভিযোগ কেন্দ্র’’-এ আপনার বিদ্যুৎবিভ্রাটেরঅভিযোগ জানানো হলে আপনাকে অভিযোগ নম্বর ও নিষ্পত্তির সম্ভাব্য সময় জানিয়েদেয়া হবে। অভিযোগ নম্বরের ক্রমানুসারে আপনার বিদ্যুৎবিভ্রাট দূরীভূতকরার লক্ষে ২৪ ঘন্টার মধ্যে নিষ্পত্তির ব্যবস্থা নেয়া হবে। কোন কোনক্ষেত্রে যদি নির্ধারিত সময়ে বিদ্যুৎবিভ্রাট দূরীভূত করা সম্ভব না হয়, তা’র কারণ গ্রাহককে অবহিত করা হবে।

 

নতুন সংযোগের জন্য আবেদনপত্রের সাথে নিম্নোক্ত দলিলাদি দাখিল করতে হবেঃ-
   সংযোগ গ্রহন কারীর পাসপোর্ট সাইজের ২ (দুই) কপি সত্যায়িত রঙ্গিন ছবি;
   জমির মালিকানা দলিলের সত্যায়িত কপি;
   ইউনিয়ন পরিষদ/পৌরসভা কর্তৃক বাড়ীর অনুমোদিত সত্যায়িত নক্সা এবং নামজারীসহ হোল্ডিং নম্বর এর সত্যায়িত কপি ও দলিল অথবা
     দাগ নম্বর, খতিয়ান নম্বর, জমির দলিল, চেয়ারম্যান/কমিশনারের সার্টিফিকেট (যেখানে নক্সা অনুমোদন নাই);
   লোড চাহিদার পরিমাণ;
   জমি/ভবনের ভাড়ার (যদি প্রযোজ্য হয়) দলিল (সত্যায়িত কপি);
   ভাড়ার ক্ষেত্রে মালিকের সম্মতি পত্রের দলিল (সত্যায়িত কপি);
   পূর্বের কোন সংযোগ থাকলে ঐ সংযোগের বিবরণ ও সর্বশেষ পরিশোধিত বিলের কপি;
   অস্থায়ী সংযোগের ক্ষেত্রে বিবরণ (প্রযোজ্য ক্ষেত্রে);
   ট্রেড লাইসেন্স (প্রযোজ্য ক্ষেত্রে);
   সংযোগ স্থানের নির্দেশক নক্সা;
   শিল্প প্রতিষ্ঠান স্থাপনের নিমিত্তে যথাযথ কর্তৃপরে অনুমোদন ( যথাঃ বন বিভাগ, বিএসটিআই ,স্থানীয় প্রশাসন ইত্যাদি);
   পাওয়ার ফ্যাক্টর ইমপ্রুভমেন্ট প্লান্ট স্থাপন (শিল্পের ক্ষেত্রে);
   সার্ভিস লাইন এর দৈর্ঘ্য কাঁচা বাড়ীর ক্ষেত্রে ১০৫-ফুট এবং পাকা বাড়ীর ক্ষেত্রে ১১০-ফুটের বেশী হবে না;
   বহুতল আবাসিক/বাণিজ্যিক ভবন নির্মাতা ও মালিকের সাথে ফাট মালিকের চুক্তিনামার সত্যায়িত কপি।

উখিয়া উপজেলা সকল জনসাধারণ অনলা্ইনে তাদের সেবা পেয়ে থাকে। বর্তমানে মিটারের আবেদন সহ সকল সমস্যা নিয়ে গ্রাহক অনলাইনের মাধ্যমে পেয়ে থাকে।

ছবি নাম মোবাইল
মোঃ সাদেকুর রহমান ০১৭৬৯৪০০১২৫
জনাব রুপন কুমার ভট্ট্যাচার্য 01769400392

ছবি নাম মোবাইল
মোঃ সাদেকুর রহমান ০১৭৬৯৪০০১২৫

ছবি নাম মোবাইল

জ্ঞাতব্য বিষয়

  • সান্ধ্য কালীন সময়ে (পিক আওয়ারে) বিদ্যুৎব্যবহারে সাশ্রয়ী হোন। আপনার সাশ্রয়কৃত বিদ্যুৎঅন্যকে আলো জ্বালাতে সহায়তা করবে।
  • সংযোগ বিচ্ছিন্ন এড়াতে নিয়মিত বিদ্যুৎবিল পরিশোধ করুন এবং বিলম্ব মাশুল সহ বিল পরিশোধের ঝামেলা থেকে মুক্ত থাকুন।
  • বিদ্যুৎবিল সাশ্রয়কল্পে মানসম্মত এনার্জি সেভিং বাল্ব (CFL) ও বৈদ্যুতিক সরঞ্জামব্যবহার করুন। টিউব লাইটে Electronic Ballast ব্যবহার করে বিদ্যুৎসাশ্রয়করুন।
  • বিদ্যুৎএকটি মূল্যবান জাতীয় সম্পদ। দেশের বৃহত্তর স্বার্থে এই সম্পদের সুষ্ঠু ও পরিমিত ব্যবহারে ভূমিকা রাখুন।
  • বৎসরান্তে পল্লী বিদ্যুৎসমিতি হতে বিদ্যুৎবিল পরিশোধের প্রমাণ পত্র প্রদান করা হয়ে থাকে।
  • মিটার রক্ষণাবেক্ষণ দায়িত্ব আপনার। এর সঠিক সুষ্ঠু অবস্থা ও সীল সমূহের নিরাপত্তা নিশ্চিত করুন।
  • বিদ্যুৎচুরি ও এর অবৈধ ব্যবহার থেকে নিজে বিরত থাকুন ও অন্যকে নিবৃত করুন।বিদ্যুৎচুরি ও এর অবৈধ ব্যবহার রোধে আপনার জ্ঞাত তথ্য ‘‘এক অবস্থানসেবা/অভিযোগ কেন্দ্র’’ এ অবহিত করে সহযোগিতা করা আপনার দায়িত্ব।
  • ইদানিংএকটি সংঘবদ্ধ অসাধু চক্র চালু লাইন হতে ট্রান্সফরমার/বৈদ্যুতিকযন্ত্রপাতি/তার চুরির সাথে জড়িত। সুতরাং আপনার এলাকার উপরিউক্ত চুরি রোধেতথ্য দিয়ে সহযোগিতা করুন।
  • গ্রাহক সদস্যই সমিতির মালিক ও সেবক।
  • বৈধ রশিদ ছাড়া পল্লী বিদ্যুৎসমিতি কোন টাকা গ্রহণ করে না।
  • লাভ নয় লোকসান নয়- এই মূলনীতিতে সমিতি পরিচালিত হয়।
  • বিদ্যুৎব্যবহারে মিতব্যয়ি হোন, অবৈধ বিদ্যুৎব্যবহার থেকে বিরত থাকুন।
  • বিদ্যুৎসংযোগ বিচ্ছিন্ন করণ এড়াতে যথা সময়ে বিদ্যুৎবিল পরিশোধ করুন।
  • বহুতল আবাসিক/বাণিজ্যিক ভবন নির্মাতা ও মালিকের সাথে ফাট মালিকের চুক্তিনামার সত্যায়িত কপি।

    "বিদ্যুতের তার ও ট্রান্সফরমার চুরি রোধে সামাজিক প্রতিরোধ গড়ে তুলুন"

অভিযোগ কেন্দ্র মোবাইল নং -০১৭৬৯৪০১০৫৪

টেলিফোন নং-০৩৪২৭৫৬১২৮

ডিজিএম মোবাইল নং-০১৭৬৯৪০০১২৫

এ জি এম (কম) মোবাইল নং-০১৭৬৯৪০০৩৯২

মরিচ্যা অভিযোগ কেন্দ্র মোবাইল নং-০১৭৬৯৪০১০৫৫

পালংখালি অভিযোগ কেন্দ্র মোবাইল নং-০১৭৬৯৪০১০৫৬